কমিউনিটি ব্যাংকের এমডি এবং সিইও হিসেবে ২য় মেয়াদে নিয়োগ পেলেন মসিউল হক চৌধুরী

কমিউনিটি ব্যাংকের এমডি এবং সিইও হিসেবে ২য় মেয়াদে নিয়োগ পেলেন মসিউল হক চৌধুরী

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক: মসিউল হক চৌধুরীকে কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে ২য় মেয়াদে নিয়োগ দিয়েছে কমিউনিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ যা বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে। পরবর্তী ৩ বছরের তাঁর ২য় মেয়াদ ১ ডিসেম্বর ২০২১ থেকে কার্যকর হবে।

 

কমিউনিটি ব্যাংকের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই মসিউল হক চৌধুরী ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

সেপ্টেম্বর ২০১৯ এ বানিজ্যিক কার্যক্রম শুরুর পর থেকে তাঁর নেতৃত্বে কমিউনিটি ব্যাংক ১৮টি শাখা, ১৬৫টি নিজস্ব এটিএম/সিআরএম, ২৪/৭ কল সেন্টার ও ১১০টি সার্ভিস ডেস্ক নিয়ে দেশের ৬৪টি জেলায় নিরবচ্ছিন্ন সেবা প্রদান করছে।

 

ব্যাংকের সূচণালগ্ন থেকে কমিউনিটি ব্যাংক ‘ডিজিটাল-ফার্স্ট’ নীতিতে সেবা প্রদানের লক্ষ্যে কমিউনিটি ক্যাশ ‘মোবাইল অ্যাপ’, এটিএম ও সার্ভিস ডেস্কের সমন্বয়ে অল্টারনেট ডেলিভারি চ্যানেলকে শক্তিশালী করার দিকে জোর দেয়। যার ফলে, ব্যাংকের ৯৯ শতাংশ লেনদেন বর্তমানে অল্টারনেটিভ ডেলিভারি চ্যানেলের মাধ্যমে প্রদান করা সম্ভব হয়েছে।

 

কমিউনিটি ব্যাংকের গ্রাহকদের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ এই ব্যাংকের মাধ্যমে প্রথমবারের মতো প্রাতিষ্ঠানিক ব্যাংকিং সেবা গ্রহণ করছে। যার মধ্যে ৭২ শতাংশেরও বেশি এখন সক্রিয়ভাবে ব্যাংকিং লেনদেনে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করছে, যা বাংলাদেশের ব্যাংকিং সেক্টরে একটি অনন্য উদাহরন।

 

কমিউনিটি ব্যাংক তার কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ পরপর ২ বছর (২০২০,২০২১) বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে আন্তর্জাতিক ইনফোসিস-ফিন্যাকল ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে। কমিউনিটি ব্যাংক সকল শ্রেণী পেশার মানুষের জন্য কর্পোরেট, রিটেইল, ট্রেজারি ও এসএমই ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পূর্নাঙ্গ ব্যাংকিং সেবা চালু করেছে, যার ফলে বিপুল সংখ্যক গ্রাহক কমিউনিটি ব্যাংকের ব্যাংকিং সেবায় আকৃষ্ট হয়েছে। চৌধুরীর কার্যকরী নেতৃত্বগুনের কারণে কমিউনিটি ব্যাংক ২০২০ সালের ক্রেডিট রেটিং অনুযায়ী প্রথম বছরেই লং টার্মে ‘এ’ ক্রেডিট রেটিং অর্জন করেছে।

 

মসিউল হক চৌধুরীর ২য় মেয়াদে নিয়োগ কমিউনিটি ব্যাংকের চলমান উৎকষের্র পথে আরো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে প্রত্যাশা করছে ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদ। 

 

মসিউল হক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (আইবিএ) থেকে বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে মাস্টার্স শেষ করে ১৯৯২ সালে আমেরিকান এক্সপ্রেস ব্যাংকে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন। তাঁর ৩০ বছরের বর্ণিল কর্মজীবনে তিনি স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, সিটিব্যাংক এন.এ., আইপিডিসিসহ দেশ বিদেশের বিভিন্ন স্বনামধন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করেছেন। 

একজন ওমেগা সার্টিফাইড ক্রেডিট প্রফেশনাল হিসেবে মসিউল হক চৌধুরী হোলসেল ব্যাংকিং, রিটেইল ব্যাংকিং, স্ট্র্যাকচার্ড ও সিন্ডিকেশন ফাইন্যান্সিং, ক্রেডিট, ট্রেড, এসএমই, অপারেশন্স এবং প্রসেস রি-ইঞ্জিনিয়ারিং এ ব্যপক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন।

 

মসিউল হক চৌধুরী একজন শিক্ষানুরাগী এবং ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির এডজাঙ্কট ফ্যাকাল্টি মেম্বার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

বিভিন্ন দৈনিকে তিনি একজন নিয়মিত কলাম লেখক। ব্যক্তিগত জীবনে জনাব চৌধুরী বিবাহিত ও এক কন্যা সন্তানের জনক।