খুলনায় ১২শ’ পরিবারকে ঈদ উপহার দিলেন নগর যুবলীগের আহ্বায়ক পলাশ

খুলনায় ১২শ’ পরিবারকে ঈদ উপহার দিলেন নগর যুবলীগের আহ্বায়ক পলাশ
খুলনা মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ।

এস কে সেলিম ,খুলনা ব্যুরো:বিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে খুলনার হাজার শত পরিবারকে ঈদ উপহার প্রদান করেছেন খুলনা মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ। রূপসা, দিঘলিয়াসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষের মাঝে তিনি ঈদ উপহার প্রদান করেন। ঈদ উপহার হিসেবে ছিলো- চাল, ডাল, তেল, সেমাই, চিনি, দুধ, বাদাম, কিছমিসসহ অন্যান্য খাদ্য সামগ্রী।

জানা গেছে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে প্রাদুর্ভাবের প্রথম থেকেই খুলনার বিভিন্ন এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী, কাঁচা বাজার, রমজান মাসের প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেছেন মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ। এবার করোনাভাইরাসের মধ্যেই পবিত্র ঈদ উল ফিতর উদযাপিত হবে। অনেক পরিবার কর্মহীন হয়ে মানবেতরজীবনযাপন করছেন। তাদের মুখে হাসি ফোটাতে ও ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে এসব পরিবারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও নগর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ।

 

খুলনা মহানগরীর পাশাপাশি রূপসা উপজেলার আইচগাতী ইউনিয়ন, দিঘলিয়ারসেনহাটীইউনিয়নসহ অন্যান্য এলাকার ১২ শত পরিবারের মধ্যে ঈদের জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী উপহার হিসেবে প্রদান করেছেন। এছাড়াও তিনি আইচগাতী ইউনিয়নের ঋষিপাড়া ৬০টি পরিবার, জেলেদের ৪৪টি পরিবার ও সেলুনের কর্মচারীদের ৩৩টি পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন।

এ বিষয়ে খুলনা মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ জানান, ঈদ মানে আনন্দ। এসময়ে সব পরিবারই নিজেদের সাধ্যমতো ভালো খাবার রান্না করেন। নিজেরা আনন্দ ভাগাভাগি করেন। কিন্তু বর্তমান সময়ে করোনাভাইরাসের কারণে অনেক কর্মহীন পরিবারের মুখে হাসি ফুটছে না। আনন্দহীন হয়ে পড়েছে তারা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলের নেতাকর্মীদের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশনা দিয়েছেন। তাঁর নির্দেশনা মেনে আমাদের অভিভাবক শেখ হেলাল এমপি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এর সার্বিক পরামর্শে এসব পরিবারকে সাহায্য-সহযোগিতা করা হয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন, রাজনীতি করে যদি মানুষের ভালবাসা পাওয়া যায়, সেটাই বড় পাওয়া। দু:সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আমাদের কর্তব্য। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর সকলে আনন্দের সাথে উদযাপন করুক এটাই আমাদের চাওয়া।