চুয়াডাঙ্গায় নদীতে নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গায় নদীতে নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার মাথাভাঙ্গা নদীতে বন্ধুদের সাথে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক মাইনুর রহমান মুন্নার মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবুরি দল। শনিবার সন্ধ্যায় শহরের পৌর এলাকার সিএন্ডবি পাড়া থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে দুপুর ১টার দিকে মুন্নাসহ তিন বন্ধু নদীতে গোসল করতে নামে। সেসময় থেকে মুন্না পানিতে ডুবে গিয়ে নিখোঁজ ছিলেন।

নিহত মাইনুর রহমান মুন্না (২৭) পৌর এলাকার হাটকালুগঞ্জ পুরাতন ঈদগাপাড়ার আব্দুল মমিন বিশ্বাসের ছেলে। তিনি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এআইইউবি'র সিএসই বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবর দুপুর ১টার দিকে মুন্না ও তার দুই বন্ধু সবুজ এবং মামুন গোসল করার জন্য মাথাভাঙ্গা নদীর সিএন্ডবিপাড়ার ঘাটে নামে। এসময় মুন্না নদীতে পানিতে তলিয়ে ডুবে যায়। এরপর থেকেই নিখোঁজ ছিল সে। এসময় তার দুই বন্ধু ও স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধারে এগিয়ে আসে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল উদ্ধার অভিযান শুরু করে।  তবে তারা খুঁজে না পেলে খুলনা থেকে ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার কাজ চালায়। প্রায় সাড়ে ৫ ঘন্টা পর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে নদীর তলদেশ থেকে মুন্নার মরদেহ উদ্ধার করে ডুবুরি দলের সদস্যরা।

চুয়াডাঙ্গা ফায়ার এন্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার আতিকুর রহমান জানান, ঘটনার পর থেকে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা উদ্ধার অভিযান চালায়। সেসময় খুঁজে না পাওয়ায় খুলনা থেকে ডুবুরি দল আনা হয়। ডুবুরি দলের সদস্যরা নদীর তলদেশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। 

বিআলো/শিলি