ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার সহযাত্রী আমরা: লায়ন এম.কে বাশার

ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার সহযাত্রী আমরা: লায়ন এম.কে বাশার

***ই-লার্নিং কোর্স ও বি-টিউব উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশিষ্ট শিক্ষাদ্যোক্তা এবং বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান লায়ন এম কে বাশার বলেছেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে। উন্নয়নের স্বপ্নতরী ডিজিটাল বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার যাত্রী আমরা। আমাদের স্বপ্ন, জ্ঞানসমৃদ্ধ জাতি গঠনের পাশাপাশি আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করা। 

তিনি আরো বলেন, দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও বাংলাদেশের ভাবমূর্তি অনন্য বৈশিষ্ট্যে উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। আর এর মাধ্যমেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ ও টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জিত হবে।

গত মঙ্গলবার বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে বিএসবি-ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপ আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন এই শিক্ষাদ্যোক্তা। রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ক্যামব্রিয়ান স্কুল এণ্ড কলেজের স্মার্ট ক্যাম্পাসে এই অনুষ্ঠানের আযোজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিএসবি-ক্যামব্রিয়ানের তৈরি করা ই-লার্নিং কোর্স অ্যাপস ও বি-টিউব স্ট্রীম লাইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। পাশাপাশি শিক্ষাসেবার জন্য শিক্ষকদের সম্মাননাও প্রদান করা হয়।

এ সময় গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান লায়ন খন্দকার সেলিমা রওশন, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা শিক্ষকবৃন্দ, সাংবাদিক ও  ক্যামব্রিয়ান স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। প্রায় আড়াই ঘন্টাব্যাপী এই অনুষ্ঠানে শারীরিক উপস্থিতির পাশাপাশি ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মেও বিপুল সংখ্যক সুধীজন অংশ নেন। 

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিএসবি-ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের চেয়ারম্যান লায়ন এম কে বাশার জানান, ই-লার্নিং কোর্স অ্যাপস ও  বি-টিউব শিক্ষা বিষয়ক একটি স্ট্রীম লাইন। এই স্ট্রীম লাইনে শিক্ষাবিষয়ক নানা কনটেন্ট শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। 

এই ই-লার্নিং ও বি-টিউব থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা নানাভাবে উপকৃত হবে মন্তব্য করে তিনি উদাহরণ দিয়ে বলেন, জুমে কীভাবে ক্লাস নিতে হয় এর মাধ্যমে শিক্ষকরা সেটা যেমন জানতে পারবেন, তেমনি শিক্ষার্থীরাও জুমে কীভাবে ক্লাস করতে হয় তা জানতে পারবে। 

এ বিষয়ে বিএসবি-ক্যামব্রিয়ানের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে, কোভিড-১৯-এর কারণে শিক্ষা ব্যবস্থায় অনলাইন এডুকেশন বা ই-লার্নিং একটি আবশ্যিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার জন্য শিক্ষকদের পারদর্শী করার লক্ষ্যে বিএসবি-ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপ ৬০টি লেকচারে ৬ ঘণ্টা ১৮ মিনিট ব্যাপ্তির ২০ পর্বের একটি ই-লার্নিং কোর্স তৈরি করেছে। বিগত ৬ মাস ধরে এই কোর্সটি ডিজাইনে সহায়তা করেছেন দেশের প্রখ্যাত পেডাগোজি স্পেশালিস্ট ও শিক্ষক প্রশিক্ষকবৃন্দ। কোর্স কন্টেন্ট নির্মাণ করেছেন দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে বাছাই করা শ্রেষ্ঠ শিক্ষক, সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা, বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কোর্সের মাস্টার ট্রেইনাররা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, জ্ঞানসমৃদ্ধ দেশ ও সমাজ গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হতে আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রীর এই আহ্বানে উজ্জীবিত হয়ে বিএসবি-ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপ বিশেষ এই ই-লার্নিং কোর্সটি তৈরির উদ্যোগ নেয়। 

এই ই-লার্নিং কোর্সটি ব্যবহারের মাধ্যমে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নের পাশাপাশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহারে দক্ষতা বাড়বে বলে বিজ্ঞপ্তিতে আশা প্রকাশ করা হয়।

বিআলো/ইলিয়াস