নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

বিশ্ব সংবাদ: লকডাউনের নিয়ম অমান্য করায় সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করেছেন নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডেভিড ক্লার্ক। বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জোসিন্ডা আর্ডেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে নিউজিল্যান্ড সরকারের প্রতিক্রিয়া নিয়ে তীব্র সমালোচনা হয়। যদিও করোনা নিয়ন্ত্রণে নিউজিল্যান্ড সফল একটি দেশ। এছাড়া করোনাকালে লকডাউন ভেঙে সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়ে বিতর্কিত হন নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডেভিড ক্লার্ক। পাশপাশি করোনাকালে সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ এবং রোগীদের আইসোলেশনের ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে নিউজিল্যান্ড সরকারের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, নিউজিল্যান্ডে আইসোলেশনে থাকা দুই রোগী কোনো পরীক্ষা ছাড়াই তাদের বাবা মায়ের সঙ্গে সাক্ষাত করে যাওয়ার সুযোগ পান। পরে তাদের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

পদত্যাগের বিষয়ে ডেভিড ক্লার্ক বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকার সময় যে সকল সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সেগুলোর পুরো দায়ভার আমি নিচ্ছি।

ডেভিড ক্লার্কের পদত্যাগের পর সেপ্টেম্বরে নির্বাচনের আগ পর্যন্ত দেশটির শিক্ষামন্ত্রী ক্রিস হিপকিনস স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন। দেশটিতে করোনায় এখন পর্যন্ত ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এক হাজার ৫শ’ ২৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বিআলো/ইসরাত