বৃটেনের রানির বিইম খেতাব পেলেন হবিগঞ্জের নীলিমা রহমান

বৃটেনের রানির বিইম খেতাব পেলেন হবিগঞ্জের নীলিমা রহমান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বৃটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সম্মাননা ব্রিটিশ এম্পেয়ার ম্যাডেল (বিইম) খেতাবে ভূষিত হলেন হবিগঞ্জের মেয়ে নীলিমা রহমান। করোনাকালীন সময় ব্যাংকিং ও অর্থনৈতিক সেক্টরে বিশেষ অবদান রাখায় তাঁকে এ খেতাব দেয়া হয়।

বৃটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের জন্মদিনে প্রতিবছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় সমাজের বিভিন্নস্তরে প্রতিনিধিদের বিইম, এমবিই ও বেইম উপাধিতে দেয়া হয় রানির পক্ষ থেকে। গত শুক্রবার রানির কার্যালয়ের ওয়েবসাইডে প্রকাশ করা এবারের সম্মাননাপ্রপ্তদের তালিকা। বৃটেনের বাংলাদেশী কমিউনিটিতে এই প্রথম কোন নারী এ সম্মাননাটি পেলেন। নীরলমা রহমান মাত্র ২৭ বছর বয়সে এ সম্মান অর্জন করেন।

নীলিমা রহমান যুক্তরাজ্যের সাউথ শীল্ডে পরিবারের সঙ্গে বসবাস করেন। তাঁরা তিন বোন এক ভাই। তাদের মাঝে সে তৃতীয়। তিনি যুক্তরাজ্যের স্যান্ডারল্যান্ড ইউনিভার্সসিটি থেকে স্নাতকোত্তর পাস করেন। পরে মানি ব্যাংকিং এসোসিয়েটের সাউথশীল্ট কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক হিসেবে চাকুরিতে যোগদান করেন।

নীলিমা রহমানের বাবা হাবিবুর রহমান রানা যুক্তরাজ্যের সাউথশীল্ডের বাংলাদেশী কমিউনিটি নেতা ও সেখানকার সফল ব্যবসায়ী। তাঁদের দেশের বাড়ি হবিগঞ্জ শহরের বাণিজ্যিক এলাকায়। নীলিমা প্রথম আলোর হবিগঞ্জ প্রতিনিধি হাফিজুর রহমান নিয়নের ভাতিজি।

নীলিমা রহমান তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এ অর্জন সমস্ত বাংলাদেশী কমিউনিটির। আমরা সুযোগ পেলে ভাল কাজ করতে পারি তা প্রকাশ পেয়েছে এ স্বীকৃতির মাধ্যমে।

বিআলো/শিলি