বাংলাদেশের টেস্ট  বাদ দিয়ে আইপিএল খেলবেন সাকিব!

বাংলাদেশের টেস্ট  বাদ দিয়ে আইপিএল খেলবেন সাকিব!
ফাইল ছবি

জাকির মামুনঃ সাকিব আল হাসানকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি  বলা হয় ৷ এখন পর্যন্ত অধিকাংশ ক্রীড়া বিশ্লেষকদের বিবেচনায় সাকিব বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার৷ বিশ্ব দরবারে সাকিব নিজেকে সমুন্নত করেছেন, বাড়িয়ে দিয়েছেন দেশের সম্মানও৷ ক্রিকেটের তিন সংস্করণই সাকিব বাংলাদেশ দলের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার৷  তাই জাতীয় দল সাকিবের প্রতি  কিছুটা নির্ভর এমন বলা ভুল হবেনা৷ ব্যাটে বলে সমান তালে খেলেন সাকিব ৷  কার্যকর অলরাউন্ডার হওয়ায় সাকিব  খেললে একজন ব্যাটসম্যান কিংবা একজন বোলার বেশি খেলানো যায়৷ তাই সাকিবের অনুপস্তিতি দলের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়৷

সম্প্রতি  ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ- আইপিএল এবারের ১৪ তম আসরে কলকাতা নাইট রাইডার্স ৩কোটি ২০ লক্ষ রুপিতে সাকিবকে দলে অন্তর্ভুক্ত করেছেন ৷গত আসরে  আইসিসির নিষেধাজ্ঞার কারণে খেলতে পারেননি তিনি৷ 

এপ্রিলে বাংলাদেশ দল যখন শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলবে, সাকিব খেলবেন আইপিএলে৷
 ভারতের এই ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট খেলার জন্য বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট খেলতে আগ্রহী নন সাকিব৷ টেস্ট সিরিজ থেকে নিজেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোডের( বিসিবি)কাছে আবেদন করেছে সাকিব৷ অনেক আলোচনা করে সাকিবের ছুটি মঞ্জুর করে নিয়েছেন বিসিবি৷ তবে বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবে নেয়নি বোর্ড৷ এটি দেশের ক্রিকেটের জন্যও ভালো দৃষ্টান্ত নয় বলে মনে করেন  বিসিবির ক্রিকেট ওপারেন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান৷

তবে জোর করে কাউকে খেলাতে চাননা বোর্ড৷ সেক্ষেত্রে আইপিএলে দল পাওয়া মুস্তাফিজুর রহমান ছুটি চাইলেও ছুটি দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে বোর্ড৷

তিনি জানান, “ সাকিব আমাদের চিঠি দিয়েছে, সে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে খেলতে চায় না। আমরা মিটিং করেছি, অনেক আলোচনা হয়েছে এটা নিয়ে। লম্বা মিটিং হয়েছে। বোর্ড আগেও নানা সময়ে নানাজনকে ছুটি দিয়েছে। তবে জাতীয় দলের খেলার সময় সাধারণত আমরা দিতে চাই না ছুটি। কিন্তু আলোচনা করে সিদ্ধান্ত হয়েছে, জোর করে কাউকে বাংলাদেশ দলে খেলা হবে না।”

“ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আমাদের টেস্ট সিরিজ ও আইপিএল একই সময়ে হবে। সাকিব টেস্ট খেলতে চায় না এই সিরিজে। আমরা তাকে ছুটি দিয়েছি। অবশ্যই খুব ভালো উদাহরণ নয় এটি। কিন্তু যেটা বললাম, অনিচ্ছুক কাউকে আমরা খেলাতে চাই না।”

টেস্ট সিরিজ না খেললেও ওয়ানডে সিরিজ খেলবেন সাকিব এমনটাই জানালেন আকরাম খান৷

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজ ও আইপিএল, কোনোটির সূচিই এখনও চূড়ান্ত না হলেও  দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে এপ্রিলে বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়া অনেকটা নিশ্চিত ৷

পিতৃত্বকালীন ছুটিতে থাকার কারণে নিউজিল্যান্ড সফরেও  সাকিবকে পাচ্ছেনা বাংলাদেশ জাতীয় দল।   
সাকিবের এমন ছুটি নেওয়া এটাই প্রথম না  এর আগেও ২০১৭ সালে ক্লান্তির কারণ দেখিয়ে  টেস্ট থেকে ছয় মাসের বিরতি নিয়েছিলেন তিনি৷

প্রসঙ্গত ,  সাকিব আইপিএলে  খেলেছেন মোট ৬৩টি ম্যাচ। ৪৬টি ম্যাচে ব্যাটিং করার সুযোগ পেয়ে করেছেন ৭৪৬ রান। বল হাতে ৬২ ইনিংসে শিকার করেছেন ৫৯টি উইকেট।

বি আলো / মুন্নী