লিবিয়ায় হত্যাকান্ড: ৫ দিনের রিমান্ডে বাহারুল

লিবিয়ায় হত্যাকান্ড: ৫ দিনের রিমান্ডে বাহারুল

শৃঙ্খলার আলো ডেস্ক: লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় কিশোরগঞ্জের ভৈরব থেকে গ্রেফতারকৃত ভৈরবের শ্রীনগর গ্রামের বাহারুল আলম ওরফে বাচ্চু মিলিটারির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন কিশোরগঞ্জের আদালত। 

সোমবার দুপুরে তার বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে কিশোরগঞ্জ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির অর্গানাইজ ক্রাইম (টিএইচবি) বিভাগের পুলিশ পরিদর্শক মো. মিজানুর রহমান। ২নং জিআর আমলি আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. রকিবুল বারী জামিন আবেদন শুনানি শেষে তার ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

এর আগে লিবিয়ায় নিহত সাদ্দাম হোসেন আকাশের বড় ভাই মোবারক হোসেন বাদী হয়ে রোববার দুপুরে সাত জনকে আসামি করে ভৈরব থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

মানবপাচারকারী তানজিরুলকে প্রধান আসামি করে আজ্ঞাত আরও ৭-৮ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলা দায়েরের পর ভৈরব থেকে সিআইডি বাচ্চু মিলিটারিকে গ্রেফতার করে। সে ওই মামলার দ্বিতীয় আসামি। একই মামলায় আরো আসামিরা হলেন, ভৈরব উপজেলার শ্রীনগর পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত সোনা মিয়ার ছেলে তানজিরুল ওরফে তানজিদ (৩৫), একই গ্রামের সোনা মিয়ার ছেলে মো. বাচ্চু মিলিটারি, তানজিদের ভাতিজা নাজমুল (২৪), মৌটুপি গ্রামের ঈদু মিয়ার ছেলে জবুর আলী (৫৫), লক্ষ্মীপুর গ্রামের জাফর (৩৫), শম্ভুপুর গ্রামের সাদেক মিয়ার ছেলে স্বপন ও গোছামারা গ্রামের মিন্টু মিয়া (৩৫)। গত ২৮ মে লিবিয়ায় অপহরণকারীদের গুলিতে ২৬ বাংলাদেশি নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হন। এদের মধ্যে ভৈরবের সাতজন নিহত ও তিনজন আহত হন। নিহতরা হলেন- রাজন, সাকিল, সাকিব মিয়া, আকাশ, মো. আলী, মাহবুব ও মামুন। আহত অবস্থায় লিবিয়ায় চিকিৎধীন আছেন সোহাগ আহমেদ, মো. সুজন মিয়া ও মো. জানু মিয়া।