সরকার কৃষিকে যান্ত্রিকীকরণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে: কৃষিমন্ত্রী

সরকার কৃষিকে যান্ত্রিকীকরণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে: কৃষিমন্ত্রী

কৃষি মন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর: রাজ্জাক এমপি বলেছেন, বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। যে কোন
প্রাকৃতিক দুর্যোগে সব সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকদের পাশে থাকেন। এ জন্য সরকার কৃষিকে যান্ত্রিকীকরণ করার উদ্যোগ গ্রহন করেছে। ধান রোপন থেকে কাটা পর্যন্ত সব কিছুই যন্ত্রের মাধ্যমে করা হবে। এজন্য সকল যন্ত্র বিদেশ থেকে আনা হচ্ছে। কৃষির সকল ক্ষেত্রকে বানিজ্যিকি করন করা হবে। শুক্রবার দুপুরে টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে কৃষকদের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় মন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান করোনা দুর্যোগে কৃষকদের পাশে রয়েছে সরকার। করোনার কারনে শ্রমিক সংকটে থাকা কৃষকদের জমির পাকা ধান যাতে ঘরে তুলতে সমস্যা না হয় সে জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারা বাংলাদেশে আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা স্বেচ্ছাশ্রমে ধান কেটে দিচ্ছেন। সরকারী উদ্যোগে ভর্তুকি মুল্যে কৃষকদের কম্বাইন্ড হারভেষ্টার মেশিন দেয়া হচ্ছে। আগামীতে হারভেষ্টার মেশিনের পরিমান আরো বাড়ানো হবে। করোনা দুর্যোগের লকডাউনের কারনে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের তালিকা করে তাদের সাহায্য সহযোগিতা করা হচ্ছে। কৃষকরা যাতে ধানসহ উৎপাদিত সকল ফসলের ন্যায্য মুল্য পায় তারও ব্যবস্থা করবে সরকার।

মধুপুর উপজেলা মিলনায়তনে ইউএনও আরিফা জহুরার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছরোয়ার আলম খান আবু, টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান খন্দকার শফি উদ্দিন মনি, মধূপুর পৌর মেয়র মাসুদ পারভেজ প্রমুখ।