অপহরণের ৮ ঘণ্টা পর উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৫

অপহরণের ৮ ঘণ্টা পর উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৫

শৃঙ্খলার আলো ডেস্ক: গাজীপুরের টঙ্গীতে অপহরণের ৮ ঘণ্টা পর ভিকটিমকে উদ্ধার ও অপহরণকারী দলের ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে টঙ্গীর একাধিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ভিকটিম সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কুলিয়ারচর গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে খোকন মোল্লা (৪০)।

সে গাজীপুর মহানগরের পশ্চিম গাজীপুর এলাকার ফারুক হোসেনের বাড়িতে ১০ বছর যাবত ম্যানেজার হিসেবে চাকরি করে আসছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হল- শেরপুরের নকলা উপজেলার চর বসন্তিপুর গ্রামের কুতুব উদ্দিনের ছেলে মজনু (২৭), রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার তুলারামপুর গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলে আল আমিন (২৫), নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার পশ্চিম সোনা পাতিল (আরিয়া পাড়া) গ্রামের ইউসুফ মিয়ার ছেলে স্বপন (২২), টঙ্গী পশ্চিম থানা খরতৈল (সুখিনগর) এলাকার আবু তালেবের ছেলে ফয়সাল (৩১) এবং টঙ্গী পূর্ব থানা এলাকার আলী হোসেনের ছেলে ওয়াসিম (৩৪)। গ্রেপ্তারকৃত ফয়সাল ও ওয়াসিমের বাড়ি টঙ্গী এলাকায়। অন্যরা দেশের বিভিন্ন জেলার অধিবাসী।

এস আই সাব্বির হোসেন জানান গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভিকটিম খোকন মোল্লা মসজিদের উদ্দেশ্যে ফারুকের বাড়ি থেকে বের হয়। এ সময় অভিযুক্তরা তাদের কমপক্ষে আট সহযোগীসহ নাকমুখ চেপে ধরে ভিকটিমকে ইজিবাইকযোগে অপহরণ করে। পরে তাকে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। ভিকটিমের স্বজনরা অভিযুক্তদের বিকাশ নাম্বারে ২৫ হাজার টাকা পাঠায়।

ঘটনাটি ভিকটিমের স্বজনরা গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপির) উপ-পুলিশ কমিশনারের কাছে অভিযোগ করেন। পরে পুলিশ মোবাইল প্রযুক্তি ব্যবহার করে টঙ্গীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। এ সময় অভিযুক্তদের কাছ থেকে ১২ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। তাদেরকে বুধবার ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

বিআলো/ইলিয়াস