• যোগাযোগ
  • অভিযোগ
  • ই-পেপার
    • ঢাকা, বাংলাদেশ
    • যোগাযোগ
    • অভিযোগ
    • ই-পেপার

    অশান্তি ভালো লাগে না মাহির 

     dailybangla 
    16th Apr 2024 10:40 pm  |  অনলাইন সংস্করণ

    বিনোদন ডেস্ক: ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। অন্যদিকে, ঢালিউডের এই প্রজন্মের নায়ক জয় চোধুরী। দুজনেই বিবাহিত। তবে সম্প্রতি স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে মাহির। এরপর সন্তান ফারিশকে নিয়েই থাকছেন থাকছেন তিনি। এদিকে ভালোবেসে নায়িকা নীড়কে বিয়ে করেছেন জয়। তাদের সংসারে রয়েছে একটি সন্তানও। তবুও নায়িকা মাহির সঙ্গে নাকি চলছে তার গোপন সম্পর্ক!

    সম্প্রতি একটি টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে অংশ নিয়েছিলেন এই দুই তারকা। সেখানে তাদের সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হয়। কথা প্রসঙ্গে মাহি বলেন, ‘জয়ের সঙ্গে আমার ২০১৯ থেকেই ভালো সম্পর্ক কিন্তু গোপন রেখে ছিলাম কারণ যেকোনো জিনিস গোপন রাখলে সেটা সুন্দর থাকে।’

    এই সাক্ষাৎকার প্রকাশের পর থেকেই নতুন করে আলোচনায় এই দুই তারকা। তবে বিষয়টি নিয়ে এত হইচই পড়ে যাওয়া এবং গণমাধ্যমের প্রচারে বিরক্ত হয়েছেন মাহিয়া মাহি।

    সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সেই ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে নায়িকা বললেন, ‘আমি খুব অবাক নামিদামী পত্রিকারও আজব আজব হেডলাইন দেখে। খুব বিরক্ত, রাগান্বিত। জাস্ট কিছু রিচ বাড়ানোর জন্য আপনাদের এমন টেকনিক আমাকে বিব্রত করতেসে। সবাই তো নিউজ পড়ে না, জাস্ট হেডলাইন দেখেই জাজ করে ফেলে। এই অশান্তি আর ভাল্লাগে না। উফফ!’

    ওই সাক্ষাৎকারে মাহির সঙ্গে ভালো সম্পর্কের বিষয়ে জয় বলেন, ‘খোলামেলা বিষয়টা আসলে সবাই ভালভাবে নেন না। গোপন থাকলে বিষয়টার মাঝে একটা পবিত্রতা থাকে। মাহির সঙ্গে আমার বন্ধুত্ব অল্প দিনের হলেও আমাদের সম্পর্কের মাঝে গভীরতা অনেক।’

    আর মাহি বলেন, ‘অল্প সময়েই জয়ের সঙ্গে আমার বেশ ভালো বন্ধুত্ব হয়ে গিয়েছে। ও আমার সঙ্গে কোনো সিনেমায় কাজ করেনি। আর আমার সঙ্গে যেই নায়করা কাজ করেন তাদের আমি শত্রু ভাবি। যার কারণে তাদের সঙ্গে আমার সম্পর্কটা ভালো হয় না। জয়ের সঙ্গে আমার ২০১৯ থেকেই ভালো সম্পর্ক কিন্তু গোপন রেখে ছিলাম কারণ যে কোন জিনিস গোপন রাখলে সেটা সুন্দর থাকে।’

    বিআলো/শিলি

    Jugantor Logo
    ফজর ৫:০৫
    জোহর ১১:৪৬
    আসর ৪:০৮
    মাগরিব ৫:১১
    ইশা ৬:২৬
    সূর্যাস্ত: ৫:১১ সূর্যোদয় : ৬:২১

    আর্কাইভ

    June 2024
    M T W T F S S
     12
    3456789
    10111213141516
    17181920212223
    24252627282930