আদর্শ ওয়ার্ড গঠনে প্রয়োজন ইসলামিক নৈতিক শিক্ষা: মোহাম্মদ হোসেন

আদর্শ ওয়ার্ড গঠনে প্রয়োজন ইসলামিক নৈতিক শিক্ষা: মোহাম্মদ হোসেন
ছবি: বাংলাদেশের আলো

ইবনে ফরহাদ তুরাগ: ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৫৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন বলেছেন,  সামাজিক অবক্ষয় ও অস্থিরতা রোধ করে একটি আদর্শ ওয়ার্ড গঠনে মূলত প্রয়োজন ইসলামিক নৈতিক শিক্ষা। আর ইসলামিক নৈতিক শিক্ষার মূল কেন্দ্র হচ্ছে মসজিদ। তাই এই মসজিদের ইমামদের যার যার অবস্থান থেকে একটি আদর্শ ওয়ার্ড গঠনে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে।

গত সোমবার রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত ৫৬নং ওয়ার্ডকে একটি আদর্শ ওয়ার্ড গড়ার লক্ষ্যে ইমাম সমাজের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় আয়োজক হিসেবে এ কথা বলেন তিনি। এ সময় কামরাঙ্গীরচরের ৪৬টি মসজিদের ইমাম ও খতিব সাহেবদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি।

এসময় উপস্থিত থাকা ইমাম ও খতিবরা সামাজিক অবক্ষয়, মাদক, কিশোর গ্যাং, ইভটিজিং, অপসংস্কৃতি, প্রযুক্তির অপ ব্যবহার, নারী নির্যাতন, নৈতিক শিক্ষার গুরুত্ব, পিতা-মাতার প্রতি সন্তানের দায়িত্ব ও কর্তব্য এবং পারিবারিক ভূমিকাসহ প্রাসঙ্গিক বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ মতামত নিয়ে যার যার অবস্থান থেকে প্রস্তাবনা ও মতবিনিময় করেন।

এ সময় ইমামরা বলেন, পরিবারের সদস্যরা যদি ইসলামিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়, শিশুরাও হয়ে উঠে আরো নৈতিক। সেই সঙ্গে প্রতিটি পরিবার যদি এখন থেকে নৈতিকতার বিকাশে সোচ্চার হয়, তাহলে নির্দ্বিধায় আমরা পাব একটি আদর্শ সমাজ।

উক্ত আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, একটি আদর্শ ওয়ার্ড গঠনে ইমাম সাহেবদের ভূমিকা নিশ্চিতকরণে আমাদের করণীয় বিষয়ের উপর যার যার অবস্থানে বার্তা দিতে থাকবেন তাহলে সম্ভব আমাদের সামাজিক অবক্ষয়, মাদক, কিশোর গ্যাং, ইভটিজিং, অপসংস্কৃতি, প্রযুক্তির অপ ব্যবহার, নারী নির্যাতন রোধ করে একটা আদর্শ ওয়ার্ড গঠনে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড থেকে সমাজকে রক্ষা করা।

৫৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন বলেন, পরিবার ও সমাজে নৈতিক মূল্যবোধের অবক্ষয় রাতারাতি ঘটে না। আবার সামাজিক নীতি-নৈতিকতা ধরে রেখে সময়কে ধারণ করে এগিয়ে যাওয়াও হঠাৎ করে হয় না। দশকের পর দশক ধরে এর পরিবর্তন হয়। নৈতিক অবক্ষয় পরিবারে, সমাজে ও রাষ্ট্রে অশান্তি ডেকে আনে। আমাদের সমাজে নৈতিক অবক্ষয়ের যে মহামারি চলেছে, তা থেকে নিষ্কৃতি পাওয়ার একমাত্র উপায় হলো পারিবারিক ও ইসলামিক নৈতিক শিক্ষা এবং ডিজিটাল প্রযুক্তির অপব্যবহার প্রতিরোধ করা। এ জন্য স্থানীয় আলেম সমাজ, শিক্ষক সমাজ ও এলাকার ব্যবসায়ীসহ আমার ওয়ার্ডের বাড়িওয়ালাদের গুরুত্বপূর্ণ মতামত ও পরামর্শ প্রয়োজন।

বিআলো/ইলিয়াস