নারী সাংবাদিককে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ প্রোপাগাণ্ডা ছড়ানোর অভিযোগে ইমনের জামিন আবারও নামঞ্জুর

নারী সাংবাদিককে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ প্রোপাগাণ্ডা ছড়ানোর  অভিযোগে ইমনের জামিন আবারও নামঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদক: নারী সাংবাদিকের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রোপাগাণ্ডা ছড়ানোর অভিযোগে রাজধানীর রামপুরা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় দৈনিক সমকালে কর্মরত জাকির হোসেন ইমনের জামিন আবেদন ফের নামঞ্জুর করেন বিজ্ঞ আদালত। 

বুধবার (১০ নভেম্বর) আসামিপক্ষের আইনজীবী ফের জামিন চেয়ে আবেদন করেন। কিন্তু চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন জামিন আবেদন আবারও নামঞ্জুর করেন। 

এর আগে বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) আসামিপক্ষের আইনজীবী জামিন চেয়ে আবেদন করেন। কিন্তু চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেনের বেঞ্চই জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

তার আগে গত  ১ নভেম্বর সোমবার আসামিপক্ষের আইনজীবী জামিন চেয়ে আবেদন করেন। কিন্তু বিজ্ঞ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল ইসলাম সেদিনও জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে দেন। 

এছাড়া ৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার আসামিপক্ষের আইনজীবী জামিন চেয়ে আবেদন করেন। কিন্তু চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন। 

এর আগে গত ১ নভেম্বর সোমবার আসামিপক্ষের আইনজীবী জামিন চেয়ে আবেদন করেন। কিন্তু বিজ্ঞ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল ইসলাম সেদিনও জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে দেন। 

উল্লেখ্য, গত ২৮ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ওই মামলায় জাকির হোসেন ইমনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত। চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ উর রহমানের আদালত এই নির্দেশ দেয়। এর আগে ২৭ অক্টোবর বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম নিভানা খায়ের জেসির আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এদিন দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। 

উল্লেখ্য, গত ২৬ অক্টোবর মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর রামপুরা এলাকার নিজ বাসা থেকে জাকির হোসেন ইমনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার সূত্রে জানা যায়, সাংবাদিক ইমন ওই ভুক্তভোগী নারী সাংবাদিকের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে কিছু আপত্তিকর, ভিত্তিহীন প্রোপাগাণ্ডা গণমাধ্যমের একটি ফেসবুক পেজে পোস্ট দেন। এছাড়াও একই বার্তা ও পেজ লিঙ্ক শতাধিক সাংবাদিককে ইনবক্সে পাঠিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। মামলা নং-২৫/তারিখ ২৫/১০/২১।