• যোগাযোগ
  • অভিযোগ
  • ই-পেপার
    • ঢাকা, বাংলাদেশ
    • যোগাযোগ
    • অভিযোগ
    • ই-পেপার

    বেতনভোগীদের শত কোটি টাকার মালিক হওয়া রোধ করতে হবে: বিচারপতি 

     dailybangla 
    30th May 2024 8:34 pm  |  অনলাইন সংস্করণ

    বিআলো প্রতিবেদক: বেতনভোগী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের শত কোটি টাকার মালিক হওয়া দেশবাসীকে হতবাক করে উল্লেখ করে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের সদ্য অবসরে যাওয়া বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ বলেছেন, এগুলোকে রোধ করতে রাষ্ট্রকেই দায়িত্ব নিতে হবে। তাহলে দেশ উপকৃত হবে। মানুষ অযাচিত বিপদ থেকে রক্ষা পাবে।

    ৩০ মে, বৃহস্পতিবার দেশের সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি হিসেবে নিজের শেষ কর্ম দিবসে অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয় ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে দেয়া সংবর্ধনায় তিনি একথা বলেন।

    প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও আপিল বিভাগের অপর বিচারপতিদের উপস্থিতিতে দেয়া বক্তব্যের একপর্যায়ে বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ বলেন, মিথ্যা মামলা ন্যায়বিচারের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি দুর্নীতি আমাদের সকল অর্জনকে ক্ষতিগ্রস্থ করছে। দুর্নীতিগ্রস্থ ব্যক্তিদের হাত থেকে অফিস আদালতকে মুক্ত রাখতে হবে।

    এসময় বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ আরও বলেন, নীতি-নৈতিকতার তোয়াক্কা না করে মুহূর্তেই বড়লোক হওয়ার মানসিকতা আমাদেরকে বড় বিপর্যয়ের মধ্যে ঠেলে দিয়েছে।

    প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও আপিল বিভাগের অপর বিচারপতিদের উপস্থিতিতে দেয়া বক্তব্যের একপর্যায়ে বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ বলেন, সম্মানিত বিচারকগণ দায়িত্ব পালন করবেন সততা ও ন্যায়পরায়ণতার সাথে, সকল প্রকার পক্ষপাতিত্ব ও ভয়-ভীতির ঊর্ধ্বে থেকে; গরীব-ধনী, ক্ষমতাশালী-ক্ষমতাহীন সবাই তার নিকট সমান। আর বিজ্ঞ আইনজীবীগণ আদালতকে সঠিক সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে আইনগত সহায়তা দিবেন। এটাই শাশ্বত নিয়ম। এর ব্যত্যয় ঘটলে নিয়ম মাফিক আইনগত ব্যবস্থা নেয়াই হবে উত্তম কাজ। তবে বিচারক যাতে স্বাধীনভাবে বিচারকার্য পরিচালনা করতে পারেন সেজন্য সর্বপ্রকার সহযোগিতা করতে হবে। পাশাপাশি বিচারককেও বিচার কার্য পরিচালনায় স্বাধীন চিত্তের অধিকারী হতে হবে। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় সচেতন হোন। ধৈর্য ও সহিষ্ণুতার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন। তবেই আমরা সম্ভবত সত্য ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখতে।

    দেশে অপরাধের ধরণ পাল্টে যাওয়া এবং কিশোর গ্যাংয়ের ভয়াবহতার কথা উল্লেখ করে বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ বলেন, সময়ের বিবর্তনে অপরাধের ধরণ প্রতিনিয়ত পাল্টে যাচ্ছে। আমাদের সন্তানদের ভয়াবহ অবস্থার দিকে ঠেলে দিচ্ছে। অভিভাবকদের বিভিন্নমুখী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হচ্ছে। পারিবারিক সম্প্রীতি, সংস্কৃতি, দীর্ঘ দিনের লালিত মূল্যবোধ নষ্ট হচ্ছে। কিশোর গ্যাংয়ের উত্থান ঘটেছে। মাদক, সামাজিক অনাচার সহ অস্ত্রের প্রতিযোগিতা, হুমকি ও আশঙ্কার বিস্তার ঘটেছে। আর এগুলোই আমাদের টেকসই উন্নয়ন, শান্তি, প্রসারিত ভালোবাসা, ধৈর্য্য ও সহযোগিতা প্রতিষ্ঠার প্রতিবন্ধক হয়ে দাঁড়িয়েছে।

    প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও আপিল বিভাগের অপর বিচারপতিদের উপস্থিতিতে মিথ্যা মামলার ভয়াবহতা উল্লেখ করে বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ বলেন, প্রতিপক্ষকে হয়রানি করার জন্য মিথ্যা মামলা হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। বিচার বিভাগকে এর ভার বহন করতে হচ্ছে। এতে আদালতের প্রচুর সময় নষ্ট হচ্ছে। মিথ্যা মামলা ন্যায়বিচারের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি দুর্নীতি আমাদের সকল অর্জনকে ক্ষতিগ্রস্থ করছে। দুর্নীতিগ্রস্থ ব্যক্তিদের হাত থেকে অফিস আদালতকে মুক্ত রাখতে হবে।

    এসময় বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ বলেন, দুর্বলকে রক্ষা, দুর্নীতি রোধ, ন্যায়সঙ্গত অধিকার প্রাপ্তি এবং দেশ ও জনগণের শান্তি-নিরাপত্তায় দেশের বিচার বিভাগ দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে।

    এর আগে অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ের পক্ষ থেকে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে সমিতির সভাপতি ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজের কর্মময় জীবন তুলে ধরে বক্তব্য দেন।

    বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ ১৯৫৭ সালের ১ জুন জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি অনার্স ও এলএলএম ডিগ্রি নেওয়ার পর ১৯৮২ সালে ঢাকা জজ কোর্টে এবং ১৯৮৫ সালের সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন আব্দুল হাফিজ। ২০০৩ সালের ২৭ এপ্রিল তিনি অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে হাইকোর্টে নিয়োগ পান। এরপর ২০০৫ সালের ২৭ এপ্রিল তিনি হাইকোর্টের স্থায়ী বিচারপতি হন। গত ২৫ এপ্রিল বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজ দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে শপথ নেন।

    বিআলো/শিলি

    এই বিভাগের আরও খবর
     
    Jugantor Logo
    ফজর ৫:০৫
    জোহর ১১:৪৬
    আসর ৪:০৮
    মাগরিব ৫:১১
    ইশা ৬:২৬
    সূর্যাস্ত: ৫:১১ সূর্যোদয় : ৬:২১

    আর্কাইভ

    June 2024
    M T W T F S S
     12
    3456789
    10111213141516
    17181920212223
    24252627282930