সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল প্রবাসী এমরানের

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল প্রবাসী এমরানের

মোঃ সাইফুল ইসলাম,নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি: বাহারাইন থেকে দেশে বেড়াতে এসে মর্মান্তিক ভাবে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারা গেলেন এমরান হোসেন (৩২)। এ সময় গুরুতর আহত হয়েছেন তার স্ত্রী মিম (২২)।

নিহত এমরান হোসেনের বাড়ি কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার ২ নং পেরিয়া ইউনিয়ন এলাকাধীন উত্তর শাকতলী গ্রামে। তিনি মুন্সিবাড়ির মোহাম্মদ আবুল কাশেমের ছেলে।

জানা গেছে, ২ এপ্রিল শুক্রবার বিকেল ৫ টা ২০ মিনিটের সময় নরপাটি তার শ্বশুর বাড়িতে যাওয়ার পথে জোড় খেজুর গাছ তলায় স্ত্রীসহ মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় পতিত হয়। তারা মোটরসাইকেল থেকে পড়ে যাওয়ার পর মুহূর্তের মধ্যে পিছন থেকে আরেকটি দ্রুতগামী মোটরসাইকেল এসে তাদেরকে ধাক্কা দেয়। এতে তারা গুরুতর আহত হন। 

স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের দুজনকে (স্বামী-স্ত্রীকে) প্রথমে লাকসাম জেনারেল হসপিটালে নিয়ে যান। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে রোগীর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। 

পরে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার পথে রাত ১ টা ৪৫ মিনিটে চান্দিনায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। আজ শনিবার দুপুর ২ টায় এমরান হোসের জানাজা তার নিজ বাড়িতে অনুষ্ঠিত হবে।

নিহত এমরানের চাচাত ভাই মোহাম্মদ রাসেল জানান, দুই বছর পূর্বে তিনি পার্শ্ববর্তী লাকসাম উপজেলার নরপাটি গ্রামে বিয়ে করেন। তাঁর স্ত্রীর নাম মিম আক্তার। বিয়ের পর এবারই তিনি প্রথমবার বাড়ি এসেছেন। তাদের কোন সন্তানাদি নেই। ২৫ দিন হয়েছে তিনি বাহারাইন থেকে দেশে এসেছেন। চালক হিসেবে তিনি ছিলেন নতুন। 

আবুল কাশেমের তিন ছেলে, চার মেয়ের মধ্যে তিনি ছিলেন ৫ নাম্বার। এমরানের মর্মান্তিক এই মৃত্যুতে তাঁর বাড়ি, গ্রাম এবং এলাকায় শোকের মাতম চলছে।

বিআলো/শিলি