সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্যরকম উচ্চতায় আবুল মাকারিম মো. আহমাদুল্লাহ

সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্যরকম উচ্চতায় আবুল মাকারিম মো. আহমাদুল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবুল মাকারিম মো. আহমাদুল্লাহ। ইউটিউব এবং ফেসবুকে তুমুল সক্রিয় একজন এক্টিভিস্ট। রাসূল সা. এর জন্মভূমি হবার কারণে  সমগ্র বিশ্বের মুসলমানের কাছে প্রাণের চেয়েও প্রিয় ভূমি সৌদি আরব।  দেশটির মক্কা-মদীনাসহ  ঐতিহাসিক স্থানগুলোর অলিগলিতে পদাচারণা করে যিনি তুলে ধরেন ইসলামের গৌরবান্বিত ঐতিহ্য।  ইতোমধ্যে অসংখ্য হজ এবং ওমরাহ কাফেলা সফলতার সঙ্গে পরিচালনা করেছেন । মুসল্লিদের নিয়ে তিনি যেমন সরেজমিনে ওইসব ঐতিহাসিক স্থান পরিদর্শন করেন, পাশাপাশি ফেসবুক এবং ইউটিউবে লাইভ করার মাধ্যমে বিশ্বের বাংলাভাষী মানুষের কাছে পৌঁছে দেন প্রাণের খোরাক।  আবুল মাকারিম মো. আহমাদুল্লাহ নিজের নামেই করেছেন ইউটিউব চ্যানেল। চ্যানেলটির সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা এখন বারো লাখ অতিক্রম করেছে। ফেসবুকেও রয়েছে তাঁর উল্লেখযোগ্যসংখ্যক ফলোয়ার।

নিজের হজ কাফেলার মাধ্যমে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের তিনি পেশাদারিত্বের সঙ্গে সেবা দিচ্ছেন। সুলভমূল্যে হজ ও ওমরাহ করিয়ে তিনি অনেকের সারাজীবনের স্বপ্ন পূরণ করেছেন। লিখেছেন ও সম্পাদনা করেছেন বেশ ক’টি বইও। হজ্জে বাইতুল্লাহ যিয়ারতে মদিনা তাঁর উল্লেখযোগ্য সম্পাদিত গ্রন্থ। সারাজীবন ইসলামের সৌন্দর্য প্রচারে  নিরন্তর কাজ করে যাবার স্বপ্নই দেখেন  ।

আবুল মাকারিম মো. আহমাদুল্লাহ শুধু হজ ও ওমরাহ কাফেলা পরিচালনা করেন না, বরং তিনি বাংলাদেশে হজ ও ওমরাহ’র বিশেষ প্রশিক্ষণ চালু করে মুসল্লীদের প্রশিক্ষিত করেন, যা যুগান্তকারী পদক্ষেপ। তাঁর ইউটিউব চ্যানেল ও পেইজে হজ ও ওমরাহ’র প্রশিক্ষণমূলক অনেক ভিডিও রয়েছে, যেগুলো হজেগমনেচ্ছুদের জন্য তথ্যভান্ডার হিসেবে কাজ করে।