• যোগাযোগ
  • অভিযোগ
  • ই-পেপার
    • ঢাকা, বাংলাদেশ
    • যোগাযোগ
    • অভিযোগ
    • ই-পেপার

    ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা 

     dailybangla 
    21st May 2024 3:31 pm  |  অনলাইন সংস্করণ

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গাজা উপত্যকায় যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) প্রধান কৌঁসুলি। এই উদ্যোগের তীব্র নিন্দা জানিয়ে ইসরায়েল বলেছে, এটি ‘নজিরবিহীন অপমান’।

    ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট ও হামাসের তিন নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ার, মোহাম্মদ দেইফ এবং ইসমাইল হানিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন প্রধান কৌঁসুলি করিম খান।

    ইসরায়েল প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে গ্রেপ্তারের দাবিকে ‘নজিরবিহীন অপমান’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। অপরদিকে, ফিলিস্তিনি সশস্ত্র সংগঠন হামাস এই উদ্যোগে ‘তীব্র নিন্দা’ প্রকাশ করেছে।

    নেতানিয়াহু বলেন, ‘হেগের (আইসিসি) কৌঁসুলি গণতান্ত্রিক ইসরায়েলের সঙ্গে গণহত্যাকারী হামাসের তুলনা করেছেন, যা আমি ঘৃণার সঙ্গে প্রত্যাখ্যান করছি।’

    আইসিসির বিচারকরা গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলে আইসিসির ১২৪ সদস্য রাষ্ট্রের ওপর এই পাঁচ নেতাকে গ্রেপ্তারের বাধ্যবাধকতা আসবে। অর্থাৎ নেতানিয়াহু বা অন্যান্যরা এসব দেশ সফর করলে দেশটি নীতিগতভাবে তাদেরকে গ্রেপ্তার করার কথা।

    এ বিষয়টি আলাদা করে উল্লেখ করেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি প্রধান জোসেফ বোরেল।

    তবে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলেও সদস্যদের তা বাস্তবায়ন করতে বাধ্য করার কোনো প্রক্রিয়া নেই এই আদালতের।

    মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আইসিসির উদ্যোগকে নাকচ করে বলেন, ‘এটি অবিশ্বাস্য’। তিনি জানান, ‘ইসরায়েল ও হামাস কোনো দিক দিয়েই তুলনার যোগ্য নয়।’

    জার্মানির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘এ ধরনের উদ্যোগে মনে হতে পারে হামাস ও ইসরায়েল একই কাতারে।’

    বাইডেন জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে দক্ষিণ আফ্রিকার আনা পৃথক এক অভিযোগকেও নাকচ করেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা অভিযোগ করেছে, গাজায় ইসরায়েলের আগ্রাসন গণহত্যার সমতুল্য।

    গতকাল সোমবার (২০ মে) বাইডেন হোয়াইট হাউসে ইহুদিদের জন্য আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে মন্তব্য করেন, ‘(গাজায়) যা হচ্ছে তা গণহত্যা নয়।’

    আইসিসির উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

    প্রসঙ্গত, ইসরায়েলের নির্বিচার ও নিরবচ্ছিন্ন হামলায় এখন পর্যন্ত ২৫ হাজার ৫৬২ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

    বিআলো/শিলি

    এই বিভাগের আরও খবর
     
    Jugantor Logo
    ফজর ৫:০৫
    জোহর ১১:৪৬
    আসর ৪:০৮
    মাগরিব ৫:১১
    ইশা ৬:২৬
    সূর্যাস্ত: ৫:১১ সূর্যোদয় : ৬:২১

    আর্কাইভ

    June 2024
    M T W T F S S
     12
    3456789
    10111213141516
    17181920212223
    24252627282930